হেডফোনের জন্যই প্রাণ গেল যুবকের!

চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা শহরের অদূরে ব্র্যাকের মোড়ে ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে নাসরুল্লাহ নামের এক যুবকের করুণ মৃত্যু হয়েছে। গতকাল সন্ধ্যা ৭টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত নাসরুল্লাহ (২৯) দামুড়হুদার গুলশানপাড়ার মমজেন হোসেনের ছেলে। ঘটনার পর নিহতের লাশ পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের টিম উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছে।

জানা গেছে, নাসরুল্লাহ কানে হেডফোন লাগিয়ে মোবাইলে কথা বলতে বলতে দামুড়হুদা ব্রাক মোড়ের রাস্তা পার হচ্ছিল। এ সময় দর্শনা দিক থেকে আসা যমুনা অটো ফ্লাওয়ার মিলসের কুষ্টিয়া ট- ১১-২৭৩৬ রেজিস্ট্রেশনের একটি দ্রুত গতির ট্রাক তাকে ধাক্কা দেয়। ট্রাকের ধাক্কায় নাসরুল্লাহ রাস্তায় পড়ে গেলে তার মাথা চাকার নিচে পিষ্ট হয় এবং সে ঘটনাস্থলে মৃত্যুবরণ করে। এ ঘটনায় ট্রাকটি পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে পুলিশ ট্রাকটি ধরে থানা হেফাজতে নেয়।

দামুড়হুদা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুকুমার বিশ্বাস জানান, ‘মঙ্গলবার রাতে একটি ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। আমরা নিহতের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছি এবং ট্রাকটি জব্দ করে থানা হেফাজতে নিয়েছি।’

Comments

comments