তড়িঘড়ি করে রেললাইন পার হতে গিয়ে ট্রেনে কাটা পড়ে নিহত ২

কিশোরগঞ্জের কটিয়াদীতে আন্তঃনগর এগারসিন্ধুর এক্সপ্রেস গোধূলিতে কাটা পড়ে জেলার পাকুন্দিয়া উপজেলার মির্জাপুর হাইস্কুলের বিজ্ঞান শিক্ষক আবদুল হামিদ (৫৫) ও তাকে মোটরসাইকেলে বহনকারী যুবক বোরহান উদ্দীনের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে।

শুক্রবার দুপুর সোয়া একটার দিকে কিশোরগঞ্জ-ভৈরব রেলপথের কটিয়াদী উপজেলার চান্দুপুর ইউনিয়নের মণ্ডল ভোগ এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে।

জিআরপি থানার এসআই ইব্রাহিম যুগান্তরকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, তারা জুমার নামাজ আদায়ের জন্য তড়িঘড়ি করে রেললাইন পার হয়ে পূর্ব মণ্ডল ভোগ জামে মসজিদে যাওয়ার চেষ্টা করলে দ্রুতগামী এগারসিন্ধুর এক্সপ্রেসের সঙ্গে ধাক্কা খেয়ে মোটরসাইকেলটি পাশে ছিটকে পড়ে। এতে ঘটনাস্থলেই শিক্ষক আবদুল হামিদের মৃত্যু হয়। আশঙ্কাজনক অবস্হায় চালক বোরহান উদ্দিনকে কটিয়াদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহত শিক্ষক আবদুল হামিদ পার্শ্ববর্তী ময়মনসিংহ জেলার পাগলা থানার খাজা গ্রামের ওয়াহেদ আলীর ছেলে এবং মোটরসাইকেল চালক বোরহান উদ্দিন পাকুন্দিয়া উপজেলার মনখোলা গ্রামের অধিবাসীবাসী বলে জানা গেছে।

কটিয়াদী উপজেলার চান্দুপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ মাহতাব উদ্দিন অভিযোগ করেন, দীর্ঘদিন যাবৎ তিনি এ রেলক্রসিং এ গেট স্থাপন করে গেট কিপার নিয়োগের দাবি জানিয়ে আসছেন। এ এলাকায় একটি ঐতিহ্যবাহী মাজার, মসজিদ, দুটি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও একটি উচ্চ বিদ্যালয় এবং বাজার থাকায় হাজার হাজার লোক চলাচল হয় এ পথ।এ ছাড়া এখানে প্রায়ই দুর্ঘটনা ঘটে। তিনি অবিলম্বে এখানে গেট স্হাপন করে গেট কিপার নিয়োগের দাবি জানিয়েছেন।

Comments

comments