এবার ক্যাসিনো কাণ্ডে জড়িত থাকায় বদলি সেই শিবলী নোমান!

ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা বিভাগের (ডিবি) অতিরিক্ত উপকমিশনার এস এম শিবলী নোমানকে আজ মঙ্গলবার পার্বত্য চট্টগ্রামের নবম আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের (এপিবিএন) অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হিসেবে বদলি করা হয়েছে। ক্যাসিনো–কাণ্ডে ২৩ দিন আগে (৬ অক্টোবর) তাঁকে পুলিশের মতিঝিল বিভাগ থেকে ডিবিতে বদলি করা হয়েছিল।

আজ মঙ্গলবার পুলিশ সদর দপ্তরের পার্সোনেল ম্যানেজমেন্ট-১–এর অতিরিক্ত উপমহাপরিদর্শক মো. আমিনুল ইসলামের সই করা আদেশে এই বদলি করা হয়।

ডিএমপি সদর দপ্তরের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বলেন, গত ১৮ সেপ্টেম্বর আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ক্যাসিনোবিরোধী অভিযান শুরু করে । পুলিশের তদন্তে বেরিয়ে এসেছে মতিঝিলের ক্লাবপাড়ায় চলা ক্যাসিনো থেকে মতিঝিল বিভাগে অতিরিক্ত উপকমিশনার থাকাকালে শিবলী নোমান ঘুষ নিতেন। এ ছাড়া ডিএমপির আরেকজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাসহ তিনজনের ক্যাসিনো থেকে ঘুষ নেওয়ারও তথ্য পাওয়া গেছে। তাঁদের মধ্যে দুজন কর্মকর্তাকে এর আগে ডিএমপির পৃথক ইউনিটে বদলি করা হয়েছে।

এর আগে ২০১৪ সালের ১৭ মার্চ রামপুরা থানার তৎকালীন ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কৃপা সিন্ধু বালা ওই থানায় তখনকার রমনা অঞ্চলের সহকারী পুলিশ কমিশনার (এসি) এস এম শিবলী নোমানের বিরুদ্ধে সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছিলেন। এতে তিনি উল্লেখ করেন, রামপুরা থানায় আটক দুই সোনা চোরাচালানীকে ছেড়ে দিতে পুলিশ কর্মকর্তা শিবলী নোমান তাঁকে চাপ ও হুমকি দেন।

এছাড়া তৎকালীন সময় উচ্চ আদালতের নির্দেশে অমান্য করে  মিথ্যা মামলায় জামায়াত নেতা কাদের মোল্লাকে গ্রেফতার করেছিলো এই শিবলী নোমান। বিভিন্ন সময় সাধারণ মানুষের মামলা দিয়ে হয়রানিসহ চাঁদা আদায়ের অভিযোগ রয়েছে এই ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা বিভাগের (ডিবি) অতিরিক্ত উপকমিশনার এস এম শিবলী নোমানের বিরোদ্ধে।

এদিকে গতকাল পুলিশ সদর একই আদেশে দিনাজপুর সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুশান্ত সরকারকে ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হিসেবে বদলি করে।

Comments

comments