গুগল ম্যাপে শেরেবাংলা হলের নাম শহীদ আবরার হল, খুনীদের নামে টয়লেট!

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শেরেবাংলা হলের নাম পরিবর্তন হয়ে গুগল ম্যাপে দেখাচ্ছে শহীদ আবরার হল। শুধু তাই নয়, হলের ভেতরে যে টয়লেটগুলো রয়েছে, সেগুলোর নাম দেখাচ্ছে আবরার হত্যায় অভিযুক্তদের নামে।

তবে গুগল লোকেশন ম্যাপে অন্যান্য স্থানগুলোর নাম অপরিবর্তিত রয়েছে।

গত ৬ অক্টোবর রাতে বুয়েটের শেরেবাংলা হলের ২০১১ নম্বর কক্ষে আবরার ফাহাদকে বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী মারধর করে। পরে, হলের দ্বিতীয় তলার সিঁড়ি থেকে অচেতন অবস্থায় আবরার ফাহাদকে উদ্ধার করা হয়। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় ব্যাপক তোলপাড় শুরু হয় গোটা দেশে।

এদিকে শেরেবাংলা হলের নাম পরিবর্তন হয়ে শহীদ আবরার হল দেখাচ্ছে গুগল ম্যাপে। এছাড়া হলটিতে অবস্থিত কয়েকটি টয়লেটের নাম দেখাচ্ছে আবরার হত্যাকারীদের নামে। যেমন- কিলার ফুয়াদ পাবলিক টয়লেট, অমিত শাহ পাবলিক টয়লেট, রাসেল পাবলিক টয়লেট, অনিক সরকার পাবলিক টয়লেট, রবিন পাবলিক টয়লেট।

ভারত-বাংলাদেশ চুক্তি নিয়ে গত ৬ই অক্টোবর বিকালে একটি ফেসবুক স্ট্যাটাস দেন শের-ই বাংলা হলের আবাসিক ছাত্র আবরার ফাহাদ।

ওই রাতেই তার নিজ কক্ষ ১০১১ থেকে ২০১১ নম্বর কক্ষে ডেকে নেয় ছাত্রলীগ নেতারা। এরপর মধ্যরাত পর্যন্ত তার ওপর নির্মম নির্যাতন চালায়। এতে তিনি মারা গেলে বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী আবরারের মরদেহ সিড়িতে ফেলে রাখে। এ ঘটনায় দেশজুড়ে শোক ও ক্ষোভে ফেটে পড়ে মানুষ। বুয়েটের পাশাপাশি সারাদেশে আন্দোলনে নামে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানসহ সাধারণ মানুষ। পুলিশ বলছে, শিবির সন্দেহে তাকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়।

আবরার হত্যার ঘটনায় এখনো ক্লাস-পরীক্ষায় ফিরে যাননি বুয়েট শিক্ষার্থীরা।

Comments

comments