ঝালকাঠিতে জামায়াতের ১৭ নেতাকর্মী গ্রেফতার

ঝালকাঠি শহরের বাহের রোড এলাকার একটি বাসায় বৈঠক চলাকালে জেলা জামায়াতের সেক্রেটারিসহ ১৭ নেতাকর্মীকে আটক করেছে পুলিশ।

শুক্রবার সকাল ৯টায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলেন- জেলা জামায়াতের সেক্রেটারি মো. ফরিদুল হক, পৌর জামায়াতের আমির আবদুল হাই শিকাদার, ঝালকাঠি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মাওলানা আবদুল কুদ্দুস, জামায়াত নেতা ও ঝালকাঠি সদর ভূমি অফিসের সার্ভেয়ার মো. শাহাবুদ্দিন, মো. হাবিবুর রহমান, হারুন তালুকতার, মাহমুদুল হাসান, গোলাম মোস্তফা, সেলিম উদ্দিন, আবুল কালাম, হাবিবুর রহমান, নজরুল ইসলাম, মোজাম্মেল হক, জাহাঙ্গীর আলম, মনিরুজ্জামান, ফরিদ উদ্দিন, ও বাড়িওয়ালা মো. মহিউদ্দিন খোকন।

ঝালকাঠির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এম এম মাহমুদ হাসান যুগান্তরকে জানান, সকালে গোপন সংবাদে জানতে পারি, শহরের বাহের রোডে অগ্রণী ব্যাংকের সাবেক এজিএম মো. মহিউদ্দিন খোকনের বাড়ির ভাড়াটিয়া রাজাপুরের মাদ্রাসা শিক্ষক মনিরুজ্জামানের বাসায় জামায়াত নেতাদের গোপন বৈঠক চলছে। পরে থানা পুলিশ ও ডিবি পুলিশ যৌথ অভিযান চালিয়ে ওই বাড়ি থেকে ১৬ জনকে আটক করে। এরপর বাড়ির মালিক মহিউদ্দিনকেও আটক করা হয়। তিনি জামায়াতের সমর্থক।

আটককৃতদের কাছ থেকে জামায়াতের কিছু সাংগঠনিক বই ও কাগজপত্র উদ্ধার করা হয় বলে জানান তিনি।

স্থানীয় জামায়াত নেতারা বলেন, জামায়াতে ইসলামীর নিয়মিত বৈঠক চলাকালে পুলিশ তাদেরকে গ্রেফতার করে। বর্তমান সরকারের নির্দেশে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। বিভিন্ন সময় গ্রেফতার করে আমাদের নেতৃবৃন্দদেরকে হয়রানি করছে। আমরা  এই ঘটনার আমরা তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।

Comments

comments