ডেঙ্গুতে মৃত্যু আরও ৫

মঙ্গলবার রাত থেকে বুধবার রাত পর্যন্ত সারা দেশে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে নার্সসহ আরও চারজনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে রাজধানীতে তিনজন এবং বরিশালে আরও একজন মারা গেছেন।

রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে জাতীয় অর্থোপেডিক হাসপাতাল ও পুনর্বাসন প্রতিষ্ঠানের (নিটোর) নার্স লর্না এলিজাবেথ মজুমদার ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। বুধবার দুপুর ১২টার দিকে নিটোরে মারা যান তিনি। এর আগে একই দিন সকালে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে রাজধানীর অ্যাপোলো হাসপাতালে শাহনুম সিরাজ নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে দেশে এসে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন রেহানা বেগম নামে এক চিকিৎসক। তিনি ঢাকার গ্রিন লাইফ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

ঢাকা মেডিকেলে নারীর মৃত্যু :

ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে মঙ্গলবার সন্ধ্যার পর ডেঙ্গু আক্রান্ত এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। মৃত খাদিজা আক্তার নীলা (২৭) রাজধানীর গেণ্ডারিয়ার দয়াগঞ্জের মো. মনির হোসেনের স্ত্রী। নীলার এক আত্মীয় জানান, ঈদুল আজহার সময় ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হন নীলা। অবস্থা খারাপ হওয়ায় ১৬ আগস্ট তাকে ঢামেকে ভর্তি করা হয়।

ঢামেক পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ বাচ্চু মিয়া ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগে চিকিৎসাধীন থাকাবস্থায় মঙ্গলবার রাতে মারা যান নীলা। তার লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

বরিশালে গৃহবধূর মৃত্যু
বরিশালের গৌরনদী উপজেলার পিঙ্গলাকাঠি গ্রামে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত ৪ সন্তানের জননী গৃহবধূ নাছিমা বেগমের (৩৫) মৃত্যু হয়েছে। চিকিৎসার জন্য ঢাকা নেওয়ার পথে মঙ্গলবার রাতে তিনি মারা যান। তিনি পিঙ্গলাকাঠি গ্রামের মোল্লার খাল পাড় নামক স্থানের আবুল মোল্লার স্ত্রী। স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক তার মৃত্যু তথ্যে সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

২১ দিনে জুলাইয়ের আড়াইগুণ ডেঙ্গু রোগী
চলতি আগস্টের ২১ তারিখ (গতকাল বুধবার) পর্যন্ত এডিসবাহিত ডেঙ্গু জ্বরে ৩৯ হাজার ৫৩৪ জন আক্রান্ত হয়েছেন। গত জুলাইয়ে এ সংখ্যা ছিল ১৬ হাজার ২৫৩। গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছেন এক হাজার ৬২৬ জন। এর আগের ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছিলেন এক হাজার ৫৭২ জন।
স্বাস্থ্য অধিদফতরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশনস সেন্টার ও কন্ট্রোল রুম থেকে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

কন্ট্রোল রুমের হিসাবে, গতকাল বুধবার ঢাকায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৭১১ জন, আগের দিন এ সংখ্যা ছিল ৭৫০। আর ঢাকার বাইরে আক্রান্ত হয়েছেন ৯১৫ জন, যা আগের দিনের চেয়ে ৯৩ জন বেশি। তবে সারা দেশের হাসপাতালগুলোতে ভর্তি থাকা রোগীর চেয়ে ছাড়পত্র নেওয়া রোগীর সংখ্যা বেড়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের রোগ নিয়ন্ত্রণ শাখা জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গুতে নতুন আক্রান্ত হয়েছেন এক হাজার ৬২৬ জন। আর হাসপাতাল ছেড়েছেন ১ হাজার ৮১৮ জন। ঢাকার বাইরে নতুন করে ভর্তি হয়েছেন ৯১৫ জন আর ছাড়পত্র নিয়েছেন এক হাজার ৫৪ জন। বর্তমানে দেশের হাসপাতালগুলোতে মোট ভর্তি থাকা রোগীর সংখ্যা ৬ হাজার ২৭৮, যা আগের দিনের চেয়ে ৩ শতাংশ কম। ঢাকায় বর্তমানে মোট ভর্তি থাকা রোগীর সংখ্যা ৩ হাজার ৩৬০ আর ঢাকার বাইরে ভর্তি থাকা রোগী দুই হাজার ৯১৮ জন। ঢাকা ও ঢাকার বাইরে মোট ভর্তি থাকা রোগীর সংখ্যা যথাক্রমে ২ ও ৫ শতাংশ কমেছে।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের তথ্য অনুযায়ী, এ বছরের জানুয়ারি থেকে এ পর্যন্ত ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছেন ৫৭ হাজার ৯৯৫ জন। আর চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৫১ হাজার ৬৭০ জন। এ পর্যন্ত ডেঙ্গুতে মারা গেছেন ৪৭ জন।

এদিকে বুধবার ঢাকা উত্তর সিটির মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেছেন, এডিস লার্ভা ধ্বংসে বাড়ি বাড়ি গিয়ে অভিযান চালানোর ক্ষেত্রে নগরবাসী পর্যাপ্ত সহযোগিতা করছে না। অভিযান পরিচালনায় যখন গিয়েছি, লিফটের মেশিন খুলে রাখা হয়েছে। ছাদের চাবি নেই বলা হয়েছে। তাই আমরা অভিযানে গিয়ে সরকারি কর্মচারীদের কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগে ১৮৬০ এর দণ্ডবিধির ১৮৩ থেকে ১৮৭, ২৬৯ থেকে ২৭০ এর ধারা প্রয়োগ করব।

Comments

comments