ডেঙ্গু নিয়ে ফটোসেশন-নাটক চলছে : ফখরুল

ডেঙ্গু নিয়ে ‘ফটোসেশন’ আর ‘নাটক’ চলছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বুধবার বিকেলে নয়াপল্টন বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ মন্তব্য করেন।

ফখরুল বলেন, ‘ডেঙ্গু নিয়ে নাটক আর ফটোসেশন চলছে। ওবায়দুল কাদের সাহেব নিজেই ঝাড়ু-টাড়ু নিয়ে ঝাড়ু দিলেন। আবার উনি বলছেন যে, ফটোসেশন করা চলবে না। ইট ইজ ভেরি ইন্টারেস্টিং। আমরা সাধারণ মানুষ এগুলো দেখছি, আরকি।’

ডেঙ্গু সমস্যা সমাধানে সরকার নিজের ব্যর্থতা ঢাকার অপচেষ্টা করছে বলেও অভিযোগ করেন বিএনপি মহাসচিব।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার তো প্রকৃতপক্ষে জনগণের কাছে কোনো দায়বদ্ধতা নেই্। তারা নির্বাচিত হয়ে ক্ষমতায় আসেনি, জোর করে ক্ষমতায় এসেছে। সেজন্য তারা যা কিছু বলতে পারে যে, একটা দায়িত্বশীল সরকার হিসেবে, জনপ্রতিনিধি হিসেবে তাদের যে দায়িত্ব পালনের কথা সেটা তারা পালন করবেন না-এটাই তো স্বাভাবিক।’

ফখরুল বলেন, আজকে নতুন নয়। অবলীলায় ইতিপূর্বেও প্রধানমন্ত্রী ও তার মন্ত্রিপরিষদের সদস্যরা সে সত্যতা অস্বীকার করেছেন। যার ফলে কী হয়েছে? দেশের মানুষ সাফার করেছে। আজকে ডেঙ্গুকে সিটি কর্পোরেশনের কর্মকর্তারা, তাদের মেয়ররা প্রথম দিকে তো কোনো গুরুত্বই দেয়নি এবং আপনার নাকচ করে দিয়েছেন গুজব বলে। এখন দেখা যাচ্ছে যে, এটা এতো বেশি সর্বগ্রাসী রূপ নিয়েছে-এটা শুধু ঢাকাতে নয়, সারাদেশে ছড়িয়ে পড়েছে। কোনো জেলা বাদ নেই। এটা (ডেঙ্গু) মহামারি আকারেই ছড়িয়ে পড়েছে।

তিনি বলেন, আমি তো প্রথমেই বলেছিলাম, আসলে অবিলম্বে এটাকে আপদকালীন সমস্যা হিসেবে চিহ্নিত করে জরুরি ব্যবস্থা নেয়ার কথা।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, যতগুলো জাতীয় সমস্যা এসেছে, কোনো সমস্যাতে আওয়ামী লীগ অন্য দলকে সম্পৃক্ত করেনি এবং তারা বিশ্বাসই করে না। তারা একলা চলো নীতিতে বিশ্বাস করে। সে কারণে তাদের বড় ধরনের ভুল হতে থাকে, ত্রটি হতে থাকে।

প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, মিডিয়ার কারণে ডেঙ্গু সমস্যা নিয়ে জনগণের মধ্যে আতঙ্ক তৈরি হচ্ছে- এই বিষয়ে আপনার প্রতিক্রিয়া কী জানতে চাইলে ফখরুল বলেন, উনারা সবসময়ই জিনিসগুলোকে অ্যাভয়েড করার চেষ্টা করেছেন। বাস্তব সত্য যেটা সেটাকে স্বীকার করতে ওরা সাহস পান না। এখানে মিডিয়া ছিল বলে তো ডেঙ্গুটা সামনে এসেছে। নাহলে ডেঙ্গুটা চেপে যেতো। সবাই বুঝতে পারতো না কীভাবে ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে ডেঙ্গু? আজকে প্রতিটি মানুষ এফেক্টটেড। যার ডেঙ্গু হয়েছে সেও ভয়ে আছেন, সেও দৌঁড়াচ্ছেন। আর যার হয়নি সেই দৌঁড়াচ্ছেন।

ফখরুল বলেন, দুইদিন ধরে আমার শরীরে ব্যথা ছিল, তার জন্য দুইবার টেস্ট করেছি। এই বয়সে যদি ডেঙ্গু হয় তাহলে ভয়াবহ আকার ধারণ করবে।

Comments

comments