বিয়ের অনুষ্ঠানে কনের বাবাকে কুপিয়ে হত্যা করলো ‘প্রেমিক’

রাজধানীর মগবাজার দিলু রোড এলাকায় একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে মেয়ের বাবাকে ছুরি দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছে কথিত এক প্রেমিক। এ সময় বাধা দিতে গেলে মেয়ের মাকেও ছুরিকাঘাত করে সে। পরে ওই ‘প্রেমিক’কে পিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে স্থানীয়রা।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে মগবাজার দিলু রোডের প্রিয়াঙ্কা কমিউনিটি সেন্টারসংলগ্ন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত ওই ব্যক্তির নাম মো. তুলা মিয়া (৪৬)। তিনি টাঙ্গাইলের মধুপুরের বাসিন্দা। তবে স্ত্রী-সন্তান নিয়ে মগবাজার দিলু রোডের প্রিয়াঙ্কা হাউসের কাছেই ভাড়া থাকতেন। তিনি একটি মেসের ম্যানেজার হিসেবে কাজ করছিলেন।

এদিকে আটক ওই যুবকের নাম সজীব আহমেদ রকি।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গতকাল বুধবার ওই মেয়ের গায়ে হলুদ ছিল। আজ তার বিয়ের অনুষ্ঠান চলছিল। কিন্তু হঠাৎ ওই যুবক সেখানে প্রবেশ করে চিৎকার চেঁচামেচি শুরু করে। তখন মেয়ের বাবা তাকে থামাতে গেলে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে মেয়ের বাবাকে ছুরিকাঘাত করে ওই যুবক। তখন মেয়ের মা বাধা দিতে গেলে তাকেও ছুরিকাঘাত করে। পরে দ্রুত তাদের ইনসাফ হাসপাতালে নেওয়া হলে দায়িত্বরত চিকিৎসক মেয়ের বাবাকে মৃত ঘোষণা করেন।

পরে মেয়ের মাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তিনি বর্তমানে সেখানেই চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এদিকে ওই যুবক পালানোর সময় তাকে ধরে পিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে স্থানীয়রা।

অভিযুক্ত রকি জানায়, ওই মেয়ের সঙ্গে তার দীর্ঘদিন প্রেমের সম্পর্ক ছিল। কিন্তু তার সঙ্গে বিয়ে না দিয়ে ওই মেয়েকে অন্য জায়গায় বিয়ে দিচ্ছিল তার পরিবার। বিয়ের অনুষ্ঠানে তাকে দেখতে গিয়েছিল। সেখানে তার পরিবারের সদস্যরা তাকে ধরার চেষ্টা করায় আত্মরক্ষার্থে সে ছুরি দিয়ে আঘাত করে।

হাতিরঝিল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুর রশিদ দৈনিক আমাদের সময় অনলাইনকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, বৃহস্পতিবার দুপুরে মগবাজারের দিলু রোড এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় এক যুবককে আটক করা হয়েছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে, পরে বিস্তারিত জানানো হবে।

Comments

comments