মশা নিধনে সরকারি কর্মচারীরা কী করছেন: প্রশ্ন হাইকোর্টের

মশা নিধনে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ব্যর্থতা তুলে ধরে হাইকোর্ট বলেছেন, ‘প্রধানমন্ত্রী (শেখ হাসিনা) চিকিৎসার জন্য লন্ডনে গেছেন। তাকে সেখান থেকে নির্দেশনা দিতে হচ্ছে। সরকারি কর্মচারীরা কী করছেন? তাদের বেতন-ভাতা-গাড়ি সবই জনগণের করের টাকায়। কিন্তু জনগণ সেবা পাচ্ছে না। কথা বললে তো বলবেন, বেশি (হাইকোর্ট) বলছি। প্রশাসন যেখানে ব্যর্থ হচ্ছে, জুডিশিয়ারি সেখানে হস্তক্ষেপ করছে।’

বুধবার (৩১ জুলাই) বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদেরের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এসব মন্তব্য করেন।

এসময় রাষ্ট্রপক্ষে আদালতে উপস্থিত ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ব্যারিস্টার এ বি এম আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ বাশার।

বিচারকদের নিরাপত্তা সংক্রান্ত একটি মামলার শুনানি চলাকালে ডেঙ্গুর প্রসঙ্গ টেনে আদালত বলেন, ‘তিনটি জেলা ছাড়া সারাদেশে ডেঙ্গু ছড়িয়ে পড়েছে। এখন একেবারে শেষ পর্যায়ে সিটি করপোরেশন নড়ে চড়ে বসেছে। কিন্তু ডেঙ্গু নিয়ে আমরা ফেব্রুয়ারিতে সতর্ক করেছিলাম। দুই সিটির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তাকে ডেকে ডেঙ্গু-চিকুনগুনিয়া রোধে ব্যবস্থা নিতে বলেছিলাম। কিন্তু তারা গা (আমলে নেওয়া) করলেন না। তারপর ২/৩ জন মারা যাওয়ার পর ভাসা ভাসা কথা বললেন (সিটি করপোরেশনের কর্মকর্তারা)। কিন্তু এখন তো সারাদেশে ডেঙ্গু ছড়িয়ে গেছে। প্রশাসনের ব্যর্থতার কারণেই আমাদের হস্তক্ষেপ করতে হয়।’

আদালত আরও বলেন. ‘প্রধানমন্ত্রী চিকিৎসার জন্য লন্ডনে গেছেন। তাকে সেখান থেকে নির্দেশনা দিতে হচ্ছে। সরকারি কর্মচারীরা কী করছেন। তাদের বেতন-ভাতা-গাড়ি সবই জনগণের করের টাকায়। কিন্তু জনগণ সেবা পাচ্ছে না। কথা বললে তো বলবেন— বেশি বলছি। প্রশাসন যেখানে ব্যর্থ হচ্ছে, জুডিশিয়ারি সেখানে হস্তক্ষেপ করছে।’

Comments

comments