দ্বিতীয় দিনের মতো রাজধানীতে চলছে পৌর কর্মচারীদের অবস্থান

রাষ্ট্রীয় কোষাগার থেকে শতভাগ বেতন-ভাতা দেওয়া, পেনশন প্রথা চালু ও জনপ্রতিনিধিদের সম্মানি ভাতার দাবিতে দ্বিতীয় দিনের মতো রাজধানীতে অবস্থান কর্মসূচি পালন করছেন দেশের ৩২৮ পৌরসভার প্রায় দুই হাজার কর্মকর্তা-কর্মচারী। বাংলাদেশ পৌরসভা সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশন (বিএপিএস)-এর ব্যানারে আজ সোমবারও (১৫ জুলাই) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে অবস্থান নেন তাঁরা।

এর আগে গতকাল রবিবার (১৪ জুলাই) সকাল ১১টায় রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে মহাসমাবেশ করেন এসব কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। মহাসমাবেশ থেকে দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত ঢাকায় অবস্থানের ঘোষণা দেন তাঁরা। এরপর আজ সোমবারও চালিয়ে যাচ্ছেন অবস্থান কর্মসূচি।

আন্দোলনকারীরা বলেন, কোনো মিথ্যা আশ্বাসে ঢাকা ছাড়বেন না তাঁরা। একমাত্র প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে দাবি মানার লিখিত নির্দেশনা পেলে তবেই তাঁরা রাজধানী ছেড়ে যাবেন। এর আগ পর্যন্ত জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করবেন। তাঁরা জানান, বর্তমানে ৩২৮টি পৌরসভার প্রায় ৩২ হাজার কর্মকর্তা-কর্মচারীর দুই মাস থেকে ৭৫ মাস পর্যন্ত বেতন বকেয়া রয়েছে, যা মোট কর্মকর্তা-কর্মচারীদের প্রায় ৮৭ শতাংশ। এসব পরিবারের লাখ লাখ সদস্য কষ্টে জীবন যাপন করছে। জীবন অতিবাহিত করাও তাদের দায় হয়ে পড়েছে।

আজ সোমবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে গিয়ে দেখা যায় জাতীয় ঈদগাহ এলাকার সামনে থেকে পল্টন মোড় পর্যন্ত সড়কে অবস্থান কর্মসূচি পালন করছেন পৌর কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। প্রবল ঝড়-বৃষ্টির উপেক্ষা করে কর্মসূচি অব্যাহত রয়েছে। এখন পর্যন্ত ২৫ জন কর্মকর্তা-কর্মচারী অসুস্থ হয়ে বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন। তাঁরা বলছেন, সরকারের পক্ষ থেকে দাবি মেনে নেওয়ার কোনো লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না। এতে চরম ক্ষোভ ও হতাশার সৃষ্টি হয়েছে তাদের মধ্যে।

Comments

comments