সুদের টাকা না পেয়ে বসতবাড়িতে আগুন দিলো আ.লীগ নেতা

সুদের টাকা না পাওয়ায় লক্ষ্মীপুরে রামগতিতে এক জেলের বসতবাড়ি পুড়িয়ে দিয়েছে সন্ত্রাসীরা। ঘটনাটি ঘটেছে রামগতি উপজেলার চর আফজাল এলাকায়। এ ঘটনায় চররমিজ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন ও তার ছেলে রিয়াজ হোসেনসহ ৬ জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করা হয়েছে। হতদরিদ্র জেলে গিয়াস উদ্দিনের আত্মীয় লিটন হোসেন বাদল বাদী হয়ে শুক্রবার রাতে রামগতি থানায় এ মামলা দায়ের করেন।

মামলা সূত্রে ও ক্ষতিগ্রস্তরা জানায়, বছরখানেক আগে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক গিয়াস উদ্দিনের কাছ থেকে সুদের ওপর ১০ হাজার টাকা নেয় হতদরিদ্র জেলে গিয়াস উদ্দিনের স্ত্রী শাহীনুর বেগম। ইতিমধ্যে ১০ হাজার টাকা পরিশোধ করেন তারা। এরপর থেকে বাকী সুদের ১৪ হাজার টাকা দেয়ার জন্য আওয়ামী লীগ নেতা গিয়াস উদ্দিন চাপ সৃষ্টি করে আসছিল।

গত বৃহস্পতিবার সকালে ওই টাকার জন্য চাপ সৃষ্টি করে আওয়ামী লীগ নেতার ভাতিজা দিদার হোসেন। টাকা দিতে অপরাগতা প্রকাশ করায় আওয়ামী লীগ নেতা গিয়াস উদ্দিনের ইন্ধনে তার লোকজন শাহীনুর আক্তার ও তার পরিবারের ওপর হামলা চালায়।

একপর্যায়ে হামলাকারীরা শাহীনুর বেগমের বসতঘরে আগুন দিয়ে জ্বালিয়ে দেয় বলে অভিযোগ করেন ক্ষতিগ্রস্ত শাহীনুর আক্তারের ভাই লিটন হোসেন বাদল। এ সময় শাহীনুর আক্তার, তার ভাই লিটন হোসেন বাদলসহ ৫ জন আহত হন। এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করে দোষীদের গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেন তারা।

এ ব্যাপারে আওয়ামী লীগ নেতা গিয়াস উদ্দিনের ছেলে রিয়াজ হোসেন জানান, শাহীনুর আক্তারের কাছে আমার বাবা কিছু টাকা পাওনা রয়েছে। এ ঘটনার সঙ্গে তার বাবা ও তাদের কেউ জড়িত নয়। তারাই নিজেরা দোকান থেকে কেরোসিন কিনে এনে তাদের বাড়ি আগুন দিয়ে জ্বালিয়ে দেন বলে দাবি করেন তিনি।

রামগতি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এটিএম আরিচুল হক জানান, এ ঘটনায় গিয়াস উদ্দিনসহ ৬ জনকে আসামী করে থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। তদন্ত চলছে। জড়িতদের গ্রেপ্তারের অভিযান চলছে।

Comments

comments