ছাত্রলীগ নেতার হাত থেকে বাঁচতে প্রধানমন্ত্রীর কাছে যুবলীগ নেত্রীর আকুতি

ছাত্রলীগ নেতার হাত থেকে নিজের জীবন বাঁচাতে প্রধানমন্ত্রীর কাছে আকুতি জানিয়েছেন যুবলীগ নেত্রী নাজমা খাতুন। নিজের জীবন ও পরিবারের নিরাপত্তা চেয়ে রাজনৈতিক নেতা ও প্রশাসনের দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন নাজমা। কয়রা থানা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আল আমিনের নির্যাতন, অব্যাহত হুমকি ও অত্যাচারের বিচার দাবি করেছেন তিনি।

এ বিষয়ে আশাশুনি থানায় সাধারণ ডায়েরি ও গতকাল খুলনা প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেছেন নাজমা খাতুন। আশাশুনি থানার প্রতাপ নগর ওয়ার্ড যুবলীগের সভানেত্রী নাজমা খাতুন অভিযোগ করেন, পরিবারের ওয়ারিশ সূত্রে প্রাপ্ত সম্পত্তি আল আমিনের মামারা জোরপূর্বক দখলে নিয়ে ভোগ করছে। বিষয়টি নিয়ে দীর্ঘদিন বিরোধ চলছে।

আল আমিনের প্রভাবে তার মামারা ২০শে মে নাজমার পরিবারের সদস্যদের কুপিয়ে জখম করলে ২৩শে মে আশাশুনি থানায় মামলা (মামলা নং-২৪) করা হয়। ওই মামলার পর থেকেই আল আমিন বেপরোয়া আচরণ ও হুমকি-ধমকি দিচ্ছে।

তার জের ধরে গত ২৮শে মে সন্ধ্যায় ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক আল-আমিন ইসলাম, তার মামাত ভাই আল আমিন হোসেন ও মামা ফারুক হোসেন ২০/২৫ জনের একটি সন্ত্রাসী দল নিয়ে হঠাৎ করে নাজমার বাড়িতে হানা দেয়।

এ সময় তাদের দেখে ঘরের দরজা বন্ধ করে দিলে তারা বাইরে থেকে হুমকি দেয় যে, আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে মামলা তুলে না নিলে তাকে অপহরণ ও হত্যা করে লাশ গুম করে ফেলবে।

নাজমা সংবাদ সম্মেলনে নিজের জীবন ও পরিবার পরিজনকে নিয়ে বেঁচে থাকার আকুতি জানিয়ে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। নিজ দলের নেতারা তাকে হত্যার হুমকি দেয়ায় দলীয় জেলা-উপজেলার শীর্ষ নেতাদের কাছে বিচার চেয়েও ব্যর্থ হয়েছেন বলে তিনি জানান। থানায় অভিযোগ দেয়ার পরে আলামিনের লোকজন আরও বেপরোয়া হয়ে ওঠে। তার পরিবারের নিরাপত্তার স্বার্থে তিনি খুলনায় এসে আশ্রয় নিয়েছেন বলে জানান।

Comments

comments