গভীর রাতে পদবঞ্চিতদের ওপর হামলা করলো ছাত্রলীগ সেক্রেটারি

আলোচিত-সমালোচিত কেন্দ্রীয় কমিটি ঘোষণা নিয়ে ছাত্রলীগের কোন্দল মেটেনি এখনও। এবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে গভীর রাতে পদবঞ্চিতদের ওপর হামলা ও মারধরের অভিযোগ উঠেছে সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানীর বিরুদ্ধে।

শনিবার দিবাগত রাতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি অভ্যন্তরে এ ঘটনা ঘটে। এর প্রতিবাদে রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে অনশন করছেন ছাত্রলীগের আন্দোলনকারীরা। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত (সকাল সা‌ড়ে ৮টা) তারা সেখা‌নে অবস্থান কর‌ছেন।

পদবঞ্চিত নেতারা জানান, সংগঠনের বিতর্কিত যেসব নেতার নাম কমিটিতে এসেছে, তাদের বহিষ্কারের সময়সীমা ও মধুর ক্যান্টিনে হামলার বিষয়ে কথা বলার জন্য কেন্দ্রীয় সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানীর সঙ্গে টিএসসিতে বসেন তারা। কথা বলার একপর্যায়ে সাধারণ সম্পাদক রাব্বানী রোকেয়া হলের সভাপতি বিএম লিপি আক্তারের কাছে তার আনিত মাদকের অভিযোগ সম্পর্কে জানতে চান। প‌রে বাক‌বিতণ্ডার একপর্যা‌য়ে গোলাম রাব্বানী লি‌পিকে মারধর ক‌রে। তা‌কে চড় থাপ্পর দেয়। প‌রে আন্দোলনকারী‌দের ঘি‌রে থাকা রাব্বানীর অনুসারীরা উপ‌স্থিত নেতাকর্মী‌দের ওপর হামলা চালায়। এসময় অন্তত ৬ জন আহত হয়।

স‌রেজ‌মিন দেখা যায়, আহত‌দের একজ‌নের অবস্থা গুরুতর। মারধ‌রের ফ‌লে তার কাঁ‌ধের হাড় ভে‌ঙে যায়। প‌রে ঢাকা মে‌ডি‌কেল ক‌লেজ (ঢা‌মেক) হাসপাতা‌লে চি‌কিৎসা শে‌ষে তা‌কে বাসায় নি‌য়ে যাওয়া হয়।

মারধ‌রের বিষয়‌টি নি‌শ্চিত ক‌রে গত কমিটির কর্মসূচি ও পরিকল্পনা সম্পাদক রাকিব হোসেন বলেন, টিএস‌সি‌তে আ‌লোচনার এক পর্যা‌য়ে সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী লিপিকে আক্রমণ করেন। ‌তি‌নি তা‌কে মারধর ক‌রেন। এছাড়া রাব্বানীর অনুসারীরা আমাদের সবার ওপর হামলা করেন। এতে বেশ কয়েকজন গুরুতর আহত হন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের উপ-প্রচার সম্পাদক শেখ আব্দুল্লাহকে আহত অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ছাত্রলীগ সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন বলেন, নি‌জে‌দের ম‌ধ্যে একটু ঝা‌মেলা হ‌য়ে‌ছে।

এদিকে এঘটনার পর টিএসসির রাজু ভাস্কর্যের সামনে অবস্থান নিয়েছেন হামলার শিকার নেতাকর্মীরা। তাদের অভিযোগ, এতে নেতৃত্ব দিয়েছেন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী।

তারা অভিযোগ করেন, রোকেয়া হল ছাত্রলীগ সভাপতি বিএম লিপি আক্তার, সুফিয়া কামাল হলের সাধারণ সম্পাদক সারজিয়া শারমিন চম্পা ও কেন্দ্রীয় সংসদের উপ-সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক তিলোত্তমা শিকদারকে মারধর করেন গোলাম রাব্বানী। কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে এ ঘটনা ঘটে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হল ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আল আমিন রহমান বলেন, আমাদের সঙ্গে তারা বসেছিলেন। কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে রাব্বানী ভাই লিপি, সম্পা ও তিলোত্তমা আপুর গায়ে হাত তোলেন। আমরা এর নিন্দা জানাই।

এ হামলার প্রতিবাদে রাজু ভাস্কর্যের সামনে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করছেন লাঞ্ছিত নেত্রীরা ও পদবঞ্চিতরা। তিনি বলেন, আমরা এখন রাজুতে (রাজু ভাস্কর্য) অবস্থান নিয়েছি। এ ঘটনার বিচার চাই। আর কতদিন এভাবে মার খেতে হবে ছাত্রলীগের মেয়েদের।

Comments

comments