ইয়াবাসহ দুদক কর্মকর্তা গ্রেফতার!

দূর্ণীতি দমন কমিশনের (দুদক) এক কর্মকর্তাকে ইয়াবা ট্যাবলেটসহ গ্রেফতার করেছে সদর মডেল থানা পুলিশ।

আটককৃত ওই ব্যক্তির নাম হাসিবুল হাসান সুমন (৩৫)। তিনি দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) সেগুনবাগিচা কার্যালয়ের ডাটা এন্ট্রি কর্মকর্তা অফিসার।

শুক্রবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে শহরের আল্লামা ইকবাল রোড থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

তবে সুমনের পরিবারের দাবি, পুলিশ সোর্সের মাধ্যমে সুমনকে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসিয়ে দিয়েছে।

আটক হাসিবুল হাসান সুমন স্থানীয় হাবিবুল্লাহর ছেলে। সুমন নিজেকে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) সেগুনবাগিচা কার্যালয়ের ডাটা এন্ট্রি অফিসার হিসেবে পরিচয় দিয়েছেন।

নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার ওসি কামরুল ইসলাম জানান, শুক্রবার তারাবিহর নামাজের পর শহরের আল্লামা ইকবাল রোড এলাকায় টহল পুলিশের একটি দল সুমনের দেহ তল্লাশি করে ১৫ পিস ইয়াবা ট্যাবলেটসহ আটক করে।

তবে ফাঁসিয়ে দেয়ার অভিযোগ ভিত্তিহীন দাবি করে ওসি জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সুমন স্বীকার করেছেন- তিনি গত ৪ মাস ধরে ইয়াবায় আসক্ত। তার বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য আইনে মামলা দায়ের করে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

এদিকে গ্রেফতারকৃত সুমনের স্বজনরা অভিযোগ করেন, রাতে পুলিশ আমাদেরকে জানায় সোর্সের মাধ্যমে ইয়াবা বেচাকেনার তথ্য পেয়ে পুলিশ সুমনকে আটকে তার দেহ তল্লাশি করে কিছু পায়নি। পরে কিছু দূরে সুমনের পরিচিত একজনকে তল্লাশি করে ইয়াবা পাওয়া গেছে। কিন্তু সকালে পুলিশ রাতের বক্তব্য থেকে সরে এসে বলছে সুমনের দেহ তল্লাশি করে ইয়াবা পাওয়া গেছে।

স্বজনরা জানান, সুজনের সঙ্গে কথা বলে জেনেছি তারাবিহর নামাজের পর সে রাস্তায় বের হলে এক যুবক প্লাস্টিকের ছোট একটি পুঁটলা তার সামনে ফেলে রাখে। কিছু বুঝে উঠার আগেই পুলিশ সেখানে এসে সুমনকে আটক করে।

Comments

comments