শিশুকে শ্লীলতাহানী করতে গিয়ে গণধোলাই খেলেন আওয়ামী লীগ নেতা

নরসিংদীর পলাশ উপজেলায় ১০ বছরের এক শিশুকে শ্লীলতাহানী করতে গিয়ে গ্রামবাসীর হাতে গণধোলাইয়ের শিকার হয়েছে কিরণ শিকদার নামে এক আওয়ামী লীগ নেতা। সোমবার রাতে উপজেলার পৌর এলাকার বালুচর পাড়া গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

গণধোলাইয়ের শিকার হওয়া কিরণ শিকদার ঘোড়াশাল পৌর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি পদে দায়িত্বে রয়েছেন। এছাড়া তিনি সাজ ডেকারেটর নামে একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের মালিক।

স্থানীয় এলাকাবাসী জানান, সোমবার বালুচরপাড়া গ্রামে মৃত্যু বার্ষিকী অনুষ্ঠানের ডেকারেটরের কাজ করতে গিয়ে কিরণ শিকদার ওই গ্রামের একটি ১০ বছরের শিশুকে নির্জন স্থানে ডেকে নিয়ে তার শ্লীলতাহানীর চেষ্ঠা চালায়। পরে শিশুটি চিৎকার চেচামেচি শুরু করলে কিরণ শিকদার তাকে ছেড়ে দিয়ে ঘটনাস্থল থেকে সড়ে পড়ে।

পরে বিষয়টি শিশুটির পরিবার ও এলাকাবাসী জানতে পেরে উত্তেজিত এলাকাবাসী কিরণ শিকদারকে আটক করে ঝাড়ু ও জুতাপিটা করে আটকে রাখে। একপর্যায়ে বিষয়টি ছড়িয়ে পড়লে কিরণ শিকদারের পরিচিত লোক এসে তাকে ছাড়িয়ে নিয়ে যায়।

এব্যাপারে অভিযুক্ত কিরণ শিকদারের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, এটি একটি ভুল বোঝাবুঝির ঘটনা। পরে বিষয়টি মিমাংসা করে নেওয়া হয়েছে।

Comments

comments