প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাদ ভেঙে নিহত ১, আহত ৫

বরগুনার তালতলী উপজেলার ছোটবগি পিকে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাদ ভেঙে পড়ে মানসুরা (৮) নামের তৃতীয় শ্রেণির ১ শিক্ষার্থী নিহত হয়েছে। এঘটনায় একই শ্রেণির আরও ৫ শিক্ষার্থী আহত হয়েছেন।

আহতরা হচ্ছেন, রুমা আক্তার, সাদিয়া, রোজমা, শাহিন ও ইসমাইল হোসেন। তাদের মধ্যে ৩ জনকে আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

শনিবার বেলা সাড়ে বারোটার দিকে ক্লাস চলাকালীন অবস্থায় হঠাৎ ছাদের বিম ভেঙে শিক্ষার্থীদের গায়ের ওপর পড়ে ছয়জন আহত হয়। আহতদের হাসপাতালে নেওয়ার পথে মানসুরা মারা যায়। নিহত মানসুরু উপজেলার পচাকোড়ালিয়া ইউনিয়নের গেন্ডামারা গ্রামের নজির হোসেন তালুকদারের সন্তান।

ছোটবগি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শাকেরিন জাহান বলেন, তিন কক্ষের একতলা বিদ্যালয় ভবনটি ২০০২ সালে নির্মাণ করা হয়। ভবনটি নির্মাণ করেন, বরগুনা-১ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য মতিয়ার রহমান তালুকদারের ভাগ্নে সেতু এন্টারপ্রাইজের মালিক আবদুল্লাহ আল মামুন। ভবনটি নির্মাণের এক বছরের মধ্যেই গ্রেড বিমে ফাটল ধরেছিল। শনিবার ক্লাস চলাকালে বেলা সাড়ে বারোটার দিকে গ্রেড ভীম ভেঙে ১ জন শিক্ষার্থী নিহত ও ৫ জন শিক্ষার্থী আহত হয়।

এ বিষয়ে বরগুনা জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা এমএম মিজানুর রহমান বলেন, ভবনের ছাদ ধসে আহত শিক্ষার্থীদের প্রয়োজনীয় চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে। বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। প্রয়োজনীয় সকল ধরনের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আমতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল বাশার ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানিয়েছেন, নিহত মানসুরার মরদেহ আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রয়েছে। আহতরাও ভর্তি আছেন, তবে তারা অনেকটা আশঙ্কামুক্ত।

Comments

comments