চাকরির প্রলোভনে বরখাস্ত কনস্টেবল হাতিয়ে নিলেন ৩১ লাখ!

চাকরির প্রলোভনে অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে পুলিশ বাহিনী থেকে বরখাস্ত হন কনস্টেবল মনিরুল হক (৩৫)। প্রতারণার অভিযোগে চাকরি হারালেও প্রতারণা ছাড়েননি তিনি। পুলিশের এসআই পদে চাকরির প্রলোভনে একজনের কাছ থেকেই হাতিয়ে নিয়েছেন ৩১ লাখ টাকা।

অবশেষে এমন অভিযোগের ভিত্তিতে রাজধানীর যাত্রাবাড়ী এলাকায় অভিযান চালিয়ে সহযোগী শাকিল আক্তারসহ (৪৫) মনিরুল হককে আটক করে র‌্যাব-১০। আটকের পর আরো অনেক বেকার যুবকের কাছ থেকে অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার বিষয়টিও স্বীকার করেছেন তারা।

মঙ্গলবার (৫ মার্চ) আটকের বিষয়টি বাংলানিউজকে জানান র‌্যাব-১০ এর উপ-অধিনায়ক মেজর আশরাফুল হক।

তিনি বলেন, মনির পুলিশ বাহিনীতে কনস্টেবল হিসেবে চাকরিরত ছিলেন। পুলিশে চাকরির প্রলোভনে অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে ২০১৪-১৫ সালে তাকে বরখাস্ত করা হয়। কিন্তু এরপরও শাকিলের যোগসাজশে তিনি এমন প্রতারণামূলক কর্মকাণ্ড চালিয়ে যাচ্ছিলেন।

সম্প্রতি আল-আমিন নামে এক যুবককে এসআই পদে চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে কয়েক দফায় প্রায় ৩১ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয় তারা। কিন্তু চাকরি না পেয়ে টাকা ফেরত চাইলে আটকরা টাকা ফেরত দিতে অস্বীকৃতি জানায় এবং আল-আমিনকে বিভিন্নভাবে হুমকি দেয়।

ভুক্তভোগী আল-আমিনের এমন অভিযোগের ভিত্তিতে যাত্রাবাড়ী থেকে প্রতারক মনির ও শাকিলকে আটক করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন বলেও জানান মেজর আশরাফুল হক।

Comments

comments