এবার মালয়েশিয়ার নাইটক্লাবগুলোতে অভিযান, শতাধিক নারী-পুরুষ আটক

মালয়েশিয়ায় অবৈধ অভিবাসীদের পাশাপাশি নাইট ক্লাবে চলছে অভিযান। টুরিস্ট ভিসায় প্রবেশ করে দেহব্যবসা ও বডি ম্যাসাজ এর অভিযোগে মালয়েশিয়ার গ্রেফতার হচ্ছেন বিভিন্ন দেশের পুরুষের পাশাপাশি নারীরাও। পুলিশ বলছে, সমাজের অপরাধ প্রবণতা বৃদ্ধির কারণ হিসেবে দেখছে এসব নাইট ক্লাবগুলো। তাই দেহব্যবসা কেন্দ্রগুলোতে চলছে অভিযান।

পুলিশ জানায়, টুরিস্ট ভিসায় এসে বিভিন্ন অনৈতিক পেশায় জড়িয়ে পড়ছে ভিন দেশের নারীরা। গত তিন দিনে মালয়েশিয়ার টুরিস্ট সেতু এলাকায় কলারামপুর, পেনাং,জোহর বায়ু, ইপো,পেরাক সহ বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে পুলিশ ও ইমিগ্রেশন বিভাগ।

ইপো জেলার জালান দাতো তাহহিল আজহার এলাকার একটি ক্লাবে ২৫ ফেব্রুয়ারি এক অভিযানে আটক করা হয় ভিয়েতনামের ৬ ও থাইল্যান্ডের ৪ নারীকে। সেই সাথে আটক করা হয় একজন মিয়ায়ানমার ও একজন বাংলাদেশী পুরুষকে। আটককৃত বাংলাদেশি সেখানে কর্মরত ছিল বলে জানা গেছে।

২৬ ফেব্রুয়ারি আলোসটার এলাকায় অভিযান চালিয়ে আটক করা হয় ভিয়েতনামের ৫ জন নারী এবং শাহআলমের পুচং এর বিভিন্ন জায়গায় অভিযানে আটক করা ৪৫ জনকে। আটককৃতদের মধ্যে বিভিন্ন দেশের নারী-পুরুষ ছিল।

সবশেষে ২৭ ফেব্রুয়ারি সেলংগার থেকে রাত ১১টার দিকে বানডার বুকিততিং ১ এবং তামান বায়ু তিংগির ২টি নাইট ক্লাবে অভিযানে ভিয়েতনামের ১৪ জন নারীকে আটক করে পুলিশ।

আটককৃতদের বিরুদ্ধে ইমিগ্রেশনের আইন ভঙ্গ করার অভিযোগ আনা হয়েছে।

Comments

comments