নাসিরের নতুন শুরু

  • চোট থেকে ফিরে বিপিএলটা ভালো করতে পারেননি নাসির। ৩ ম্যাচে করেছিলেন ৪ রান। আজ ডিপিএল টি-টোয়েন্টিতে তাঁর শুরুটা হয়েছে দারুণ।

চোট আর নানা বিতর্কে গত বছরটা একেবারেই ভালো যায়নি নাসির হোসেনের। জানুয়ারিতে হাঁটুর চোট কাটিয়ে মাঠে ফেরা ২৭ বছর বয়সী এ অলরাউন্ডারের লক্ষ্য ছিল বিপিএলে ভালো করা। ভালো করবেন কী, বিপিএল গেল তাঁর আরও বাজে।

নিয়মিত একাদশে ঠাঁই মেলেনি, নাসিরকে একটা পর্যায়ে দলের বোঝাও মনে করেছে সিলেট সিক্সার্স টিম ম্যানেজমেন্ট! বোঝাই যদি না মনে করবে তবে সিলেট পর্বে কেন তাঁকে সিলেটে নেওয়া হয়নি? কদিন আগে সাব্বির রহমান যেমন সব প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন ব্যাট দিয়ে। নাসিরও নিশ্চয়ই সেটি চাইবেন। পারবেন কি না, আরেকটু অপেক্ষা করতে হবে। তবে নতুন শুরু তাঁর মন্দ হয়নি।

আজ মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ (ডিপিএল) টি-টোয়েন্টিতে শেখ জামাল ধানমন্ডির হয়ে খেলাঘর সমাজকল্যাণ সমিতির বিপক্ষে দেখা গেল কিছুটা নাসির-ঝলক। ২৭ বলে ৩৪ রান, আহামরি কিছু নয়। তবে নাসির উইকেটে স্বচ্ছন্দ সময় কাটিয়েছেন। তাঁর ব্যাটিংয়ে ছিল নিজেকে ফিরে পাওয়ার আভাস। ১৪তম ওভারে মইনুল ইসলামকে টানা দুটি ছক্কা মারলেন, একটা লং অন, আরেকটা কাভারের ওপর দিয়ে। দুটি ছক্কাই বলে দিচ্ছিল চোট, ফর্ম, বিতর্ক সব পেছনে ফেলে নতুন করে শুরু করতে চান।

নুরুল হাসানের সঙ্গে নাসিরের ৬৫ রানের জুটি শেখ জামালকে এনে দিয়েছে ৫ উইকেটে ১৬৯ রানের স্কোর। নাসিরের চেয়ে বেশি উজ্জ্বল ছিলেন নুরুল। রবিউল হককে স্কুপ করতে গিয়ে থার্ড ম্যানে তানভীরের ক্যাচ হওয়ার আগে শেখ জামাল অধিনায়ক করে যান ২৮ বলে ৪৩ রান।

শেখ জামালের দেওয়া ১৭০ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে খেলাঘর শুরুটা করেছে ভালো। প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত তাদের স্কোর ১২ ওভারে ১ উইকেটে ৯০। খেলার ফল যা-ই হোক, এই ম্যাচের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ দিক, নাসিরের ছন্দে ফেরার ইঙ্গিত।

Comments

comments