ডাকসু নির্বাচনে ছাত্রদলের প্যানেল ঘোষণা

ডাকসু নির্বাচনকে সামনে রেখে প্যানেল চুড়ান্ত করেছে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল। এসএম হলের যুগ্ম আহ্বায়ক মোস্তাফিজুর রহমানকে সহ সভাপতি (ভিপি) এবং জহুরুল হক হলের যুগ্ম আহ্বায়ক আনিসুর রহমান খন্দকার অনিককে সাধারণ সম্পাদক (জিএস) করে এই প্যানেল ঘোষণা করেছে দলটি।

এছাড়া বঙ্গবন্ধু হলের যুগ্ম আহ্বায়ক খোরশেদ আলম সোহেল তাজকে সহ সাধারণ সম্পাদক (এজিএস) পদে ছাত্রদলের পক্ষে ডাকসু নির্বাচনের জন্য মনোনয়ন দেয়া হয়েছে।

স্বাধীনতা সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক: জাফরুল হাসান নাদিম, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক: মাকসুদুর রহমান, কমনরুম ও ক্যাফেটেরিয়া বিষয়ক সম্পাদক: কানেতা ইয়ালাম, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক: আশরাফুল আলম উজ্জল, সাহিত্য ও প্রকাশনা সম্পাদক: মিনহাজ আহমেদ প্রিন্স, সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক: কাইয়ূম উল ইসলাম, ক্রীড়া সম্পাদক: মনিরুজ্জামান মামুন, ছাত্র পরিবহন বিষয়ক সম্পাদক: মাহফুজুর রহমান চৌধুরী, সমাজ সেবা সম্পাদক: তৌহিদুল ইসলাম ছাত্রদলের হয়ে ডাকসু নির্বাচনে লড়বেন। এছাড়া সদস্য পদে হাবিবুল বাশার, আরিফ হোসেন, ইকবাল হোসাইন, সাহাব উদ্দিন, মাহমুদুল হাসান, সাফায়াত হাসনাইন, সাবিত তানভীর, আজাদী সাকিব সুলতান, মোঃ সালাউদ্দিন সিদ্দিক, শরীফুল ইমাম, আল নাসের মিশুক ও আলমগীর হোসেন।

সোমবার ক্যাম্পাসের মধুর ক্যান্টিনে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে প্যানেল ঘোষণা করেন বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক আবুল বাশার সিদ্দিকী। এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন ছাত্রদলের বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি আল মেহেদী তালুকদার।

এর আগে ১১ ফেব্রুয়ারি ডাকসুর তফসিল ঘোষণার পর থেকেই একাডেমিক ভবনে ভোটকেন্দ্র চেয়ে ও নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশনারসহ ৭ দফা দাবি নিয়ে নির্বাচন তিন মাস পেছানোর দাবিতে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করেছে ছাত্রদল। তাদের কোন দাবিই মানা হলেও শেষ পর্যন্ত নির্বাচনে যাচ্ছেন তারা।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রদলের সভাপতি আল মেহেদী তালুকদার বলেন, আমরা নির্বাচনের ব্যাপারে আন্তরিক। আমাদের ৭ দফার কোন দাবিই মানা হয়নি। তারপরও আমরা গণতান্ত্রিক ঢাবি চাই সে লক্ষ্যেই আমরা নির্বাচনে যাচ্ছি। ছাত্রদল ডাকসু নির্বাচনকে অনেক গুরুত্ববহ মনে করে। আমরা বিশ্বাস করি প্রগতিশীল বাংলাদেশ বিনির্মাণে ডাকসু নেতৃত্ব ভূমিকা রাখবে।

মেহেদী আরও বলেন, এখন পর্যন্ত ঢাবির একটি হলেও ছাত্রদলের কোন কর্মীর অবস্থান নেই। এ অবস্থায় হলে ভোটকেন্দ্র থাকলে সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়। তারপরও আমরা হলে হলে প্যানেল দিয়েছি।

ঘোষিত তফসিলে ডাকসু নির্বাচন মনোনয়নপত্র সংগ্রহের সময়সীমা ২৫ ফেব্রুয়ারি। আগামী ১১ মার্চ অনুষ্ঠিত হবে এ নির্বাচন।

Comments

comments