টয়লেট পেপারে ‘আল্লাহ’, যুক্তরাজ্যের মার্কস & স্পেনসার কোম্পানি বর্জনের দাবি

যুক্তরাজ্যের কোম্পানি মার্কস & স্পেনসার(এম&এস) কোম্পানির টয়লেট পেপারে ‘আল্লাহ লেখা রয়েছে’ এমন অভিযোগে কোম্পানিটি বর্জনের দাবি উঠেছে। বুধবার প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে একথা জানিয়েছে দেশটির গণমাধ্যম মিরর অনলাইন।

সম্প্রতি ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিওতে এক ব্যক্তি এই টয়লেট পেপারে আরবিতে ‘আল্লাহ’ শব্দটি স্পষ্টভাবে আছে দাবি করে আড়াই পাউন্ডের বিনিময়ে কাউকে এটি না কেনার জন্য বলেছেন। তিনি ভিউয়ারদেরকে এম&এস বর্জনের আহ্বানও জানিয়েছেন।

গত কয়েকদিনে সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়া এই ভিডিওতে যিনি কথা বলছেন, তার মুখ দেখা যাচ্ছে না। এতে তাকে একটি লাল রঙের প্রাইভেট কারের ওপর এম&এসের এক প্যাক টয়লেট পেপার রেখে কথা বলতে দেখা যাচ্ছে।

ভিডিওটিতে তাকে বলতে শোনা যায়, সম্প্রতি আমি মার্কস অ্যান্ড স্পেনসারের এক প্যাক টয়লেট পেপার কিনেছি। ব্যবহারের জন্য যখন আমি সেগুলোর একটি খুলি, তখন তাতে আল্লাহর নাম দেখতে পাই, যেমনটি আপনারা দেখতে পাচ্ছেন।

তিনি বলেন, তাই দয়া করে ভাই ও বোনেরা এই বিশেষ টয়লেট পেপার কেনা থেকে নিজেদেরকে বিরত রাখুন বা মার্কস & স্পেনসার বর্জন করুন, কারণ প্রতিটির ওপরেই আল্লাহর নাম আছে। অনেক ধন্যবাদ আপনাদের, দয়া করে ভিডিওটি শেয়ার করুন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ভিডিওটি অনেকের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে। অনেকেই তার দাবির পক্ষে নিজেদের মত দিয়েছেন। লুনা অ্যান্ড্রিস নামের একজন ইউটিউব ব্যবহারকারী মন্তব্য করেছেন, ‘#বয়কটমার্কঅ্যান্ডস্পেনসার’

এনভিএম নামের একটি ইউটিউব অ্যাকাউন্ট থেকে করা মন্তব্যে বলা হয়েছে, এম&এসের প্রতি ধিক্কার। এম&এসের কাছ থেকে থেকে এমনটা আশা করিনি। এম&এসকে সম্পূর্ণভাবে বর্জনের বিষয়টিকে আমি সমর্থন করি।

চেঞ্জ ডট ওআরজি’তে একটি পিটিশনে মুসা আহমেদ নামের একজন মার্কস & স্পেনসারের এই টয়লেট পেপারের প্যাটার্ন পাল্টানোর দাবি জানিয়েছেন। ইতোমধ্যে এই দাবির পক্ষে মত দিয়েছেন এক হাজারেরও বেশি জন।

এই বিষয়ে মার্কস & স্পেনসারের অফিসিয়াল অ্যাকাউন্টের একটি টুইটে বলা হয়েছে, গত পাঁচ বছর ধরে আমরা এই টয়লেট পেপার বিক্রি করে আসছি। যে প্রতীক নিয়ে অভিযোগ উঠেছে, সেটি মূলত একটি ঘৃতকুমারীর পাতা।

Comments

comments