আবারও রাজধানী থেকে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র নিখোঁজ

রাজধানী থেকে মোতাহের হোসেন তুহিন (২২) নামে বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থী নিখোঁজ হয়েছে বলে অভিযোগ করেছে পরিবার। তুহিন ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটির কম্পিউটার সাইন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ২য় বর্ষের ছাত্র। তিনি ফেনী সদর উপজেলার ইজ্জতপুর গ্রামের মৃত এরশাদুল্লাহ বাহারের ছেরে। পরিবার জানায়, গত শুক্রবার সকালে মগবাজারের খালার বাসা থেকে ফকিরাপুলের উদ্দেশ্যে বের হওয়ার পর থেকে তার আর কোন খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না।

নিখোঁজ শিক্ষার্থীর খালাতো ভাই সাংবাদিক আবদুল্লাহ যোবায়ের বলেন, ২১ তারিখ শুক্রবার সকাল ৯টার দিকে তুহিনের সাথে তার সর্বশেষ কথা হয়। তিনি বলেন, তুহিন মগবাজারে তার এক খালার বাসায় ছিল। সকাল ৯টার থেকে সেখান থেকে বের হয়। পরে আমাকে কল দিয়ে মগবাজারের ওয়্যারলেস মোড়ে আসতে বলে। আমাদের দু’জনের একত্রে ফকিরাপুল যাওয়ার ছিল। কিন্তু তিনি ওয়ারলেস এসে তুহিনকে কল করলে তার মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

নিখোঁজের ৭দিন হয়ে গেলেও খোঁজ মেলেনি মোতাহারের। আবদুল্লাহ যোবায়ের আরও বলেন, নিখোঁজের পর থেকে ইতোমধ্যে সম্ভাব্য সব জায়গায় খোঁজ নেওয়া হয়েছে। আশেপাশের সব থানা ও বিভিন্ন হাসপাতালে খোঁজ করেও তার কোন হদিস পাওয়া যায়নি।

তুহিনকে খুঁজে পেতে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সহযোগিতা চেয়েছে পরিবার। তুহিনের মা হাসিনা বেগম কান্নাজড়িত কণ্ঠে বলেন, খুব ছোটবেলায় তুহিনের বাবা মারা যায়। এরপরে অনেক কষ্টে ছেলেকে মানুষ করেছি। তিনি বলেন, তুহিন আমার একমাত্র সম্বল। ছেলেকে ফিরে পেতে তিনি আইন শৃঙ্খলা বাহিনীসহ সংশ্লিষ্ট সকলের সহযোগিতা চেয়েছেন।

উল্লেখ্য গত ২৫ ডিসেম্বর রাজধানী থেকে আব্দুজ জাওয়াদ নামে এক বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রকে তার নিজ বাড়ী থেকে গ্রেপ্তার করে নিয়ে যায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা। কিন্তু গ্রেপ্তারের পর তার থেকে এখনও পর্যন্ত কোন খোঁজ মেলেনি।

আরো পড়ুন: রাজধানীতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র নিখোঁজ

Comments

comments