নৌকায় ভোট চাইলেন ‘ওসি’, ভিডিও ভাইরাল (ভিডিও)

নৌকা মার্কায় ভোট দিতে সাতক্ষীরার কলারোয়াবাসীকে আহ্বান জানিয়েছেন কলারোয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মারুফ আহম্মেদ। এর মাধ্যমে তিনি ভোটারদের অবস্থান জানান দেয়ার কথাও বলেন।

তিনি বলেন, আজকে আমি প্রশাসনের পক্ষ থেকে একটা কথা বলতে চাই, ‘স্বাধীনতার স্বপক্ষের শক্তিকে আপনারা ভোট দেবেন, নৌকা মার্কায় ভোট দেবেন।’ কলারোয়া জিকেএমকে পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের মাঠে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে উপজেলার ভোটারদের প্রতি তিনি এ আহ্বান জানান। মারুফ আহম্মেদ ওই বক্তব্যের ভিডিওচিত্র এরই মধ্যে সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে ।

বক্তব্যটি হুবহু তুলে দেয়া হলো:
এমন একটা সুন্দর ইলেকশন পূর্বে প্রদর্শনী করার জন্য। আর আজকে কলাকুশলীরা, যারা অনেক কষ্ট করে ঢাকা থেকে, রাতদিন পরিশ্রম করে, জার্নি করে, কলারোয়া এসে অনুষ্ঠান করছে, আমি অফিসার ইনচার্জ, কলারোয়া হিসেবে আমার পক্ষ থেকে তথা কলারোয়াবাসীর পক্ষ থেকে তাদের ধন্যবাদ জানাই।

হাততালি!

তারা অনেক কষ্ট করে তাদের শারীরিক কসরত দিয়ে তাদের নৈপূণ্য দেখাচ্ছেন।

আজকের এই জিনিসটা আমাদের জন্য একটা ভাগ্যের ব্যাপার ছিলো। আমি এই অনুষ্ঠান যাতে সুচারুভাবে সম্পন্ন হয়, সেই দায়িত্বে আছি। বাংলাদেশ পুলিশ কলারোয়াবাসীর পক্ষে আছে। এতক্ষণ আমাদের রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ বক্তৃতা দিয়ে গেছেন। আপনাদেরকে আগামী একাদশ সংসদ নির্বাচনের মেসেজ পৌঁছে দিয়েছেন। তারা বলেছেন, কোন মার্কায় ভোট দিতে হবে। আজকে আমি প্রশাসনের পক্ষ থেকে একটা কথা বলতে চাই, ‘স্বাধীনতার সপক্ষের শক্তিকে আপনারা ভোট দেবেন, নৌকা মার্কায় ভোট দেবেন।’ কারণ এই সরকার যত উন্নয়ন করেছে, এই সরকার যেভাবে জনগণের পাশে থেকেছে, আগামীতেও যেনো আপনাদের পাশে থেকে সকল বাধা বিপত্তি দূর করে কলারোয়াকে একটি মডেল জেলা হিসেবে উন্নীত করে।

এখানকার মানুষ যেনো গর্ব করে বলতে পারে যে, আমি কলারোয়ার অধিবাসী, আমি সাতক্ষীরার অধিবাসী।

এই আশাবাদ ব্যক্ত করছি আর একটা মেসেজ পৌঁছে দিতে চাচ্ছি, কোন পেশীশক্তি, কোন দুর্বৃত্তদের জায়গা অন্তত: কলারোয়া, সাতক্ষীরাতে হবে না ইনশাল্লাহ। আপনারা নির্ভয়ে ভোটকেন্দ্রে যাবেন। আপনার ব্যালোট, আপনার বুলেট, আপনার ভোটের মাধ্যমে দেখিয়ে দেবেন যে, আপনি স্বাধীনতার স্বপক্ষের শক্তিতে আছেন। তাই আমাদের জননেত্রী, বাংলাদেশ সরকারের নির্বাচনকালীন প্রধানমন্ত্রী তথা বঙ্গবন্ধুর কন্যা, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নেত্রী, আমাদের সভানেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার জন্য আপনার একটি ব্যালোট, আপনার একটি ভোট অতি মূল্যবান। আপনি আপনার ভোটটি সযত্নে, সুযোগ্য জায়গায় দিয়ে আপনার অবস্থান জানান দিবেন এবং আগামীতে সরকারের এই উন্নয়নের ধারা অব্যাহত থাকে, সেজন্য আপনার সহযোগিতা একান্ত কাম্য। বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমিকে ধন্যবাদ, সাতক্ষীরা শিল্পকলা একাডেমিকে একটি চমৎকার আয়োজনের জন্য। সেইসঙ্গে সর্বশেষ আপনাদেরকে একটি কথা বলবো যে, উন্নয়নের জন্য এই সরকার, যেটি একটু আগে আমাদের রত্না ভাবী বলেছেন যে, এই উন্নয়নের স্বার্থে এই সরকার, বাংলাদেশ সরকার, এই আওয়ামী লীগ সরকার বারবার দরকার। তাই আসুন, আমরা আবার এই সরকারকে ক্ষমতায় এনে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখি। সকলকে ধন্যবাদ। কলাকৌশলী যারা আজকে আমাদের এই এক্রোবেটিক প্রদর্শনী করছেন, শরীর চর্চা করছেন, আমাদের ডিসপ্লে দেখাচ্ছেন, তাদেরকে ধন্যবাদ।

সবাইকে আবারো যে কথা বললাম, আমার এখানে মিল্টন ভাই আছেন, আমার স্বপ্না আপা আছেন, রত্না দি আছেন। ইনশাল্লাহ আগামী ৩০ তারিখে আমরা ম্যান্ডেট নিয়ে, আমাদের বিজয় নিয়ে এক সপ্তাহের মধ্যে সেরকম একটা অনুষ্ঠান, সরকারি জি কে এম কে স্কুলের বলফিল্ড মাঠে আমরা করবো। সেখানে গানবাজনা করবো, সকলে আমরা আনন্দ ভাগাভাগি করে নেবো। বাংলাদেশ চিরজীবি হোক।

ভিডিও:

Comments

comments