নিজের মাকে খুন করল আ.লীগ এমপির পুত্রবধূ

আ.লীগ এমপির পুত্রবধু টুম্পা খাতুন ও নিহত মমতাজ খাতুন

নিজের মাকে হত্যার দায়ে সাতক্ষীরার সংরক্ষিত আসনের  আওয়ামীলীগ এমপি মিসেস রিফাত আমিনের পুত্রবধূ টুম্পা খাতুনের নামে মামলা দায়ের করা হয়েছে। পাটকেলঘাটা থানার ওসি মো. রেজাউল ইসলাম রেজা মমতাজ বেগম হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় বুধবার রাতে থানায় হত্যা মামলাটি দায়ের করে।

গত ১০ সেপ্টেম্বর সোমবার সকালে টুম্পা খাতুন তার মা মমতাজ খাতুনকে (৫০) মাদক সেবনে বাধা দেওয়ায় রড দিয়ে আঘাত করে। এতে মমতাজ খাতুন মাথায় ও ঘাড়ে আঘাতপ্রাপ্ত হয়ে জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন।

পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতাল ভর্তি করে। পরে তার অবস্থার অবনতি হলে রাতে খুলনার মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

এদিকে, ঘটনার রাতে নিহত মমতাজ খাতুনের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য পুলিশ উদ্ধার করে নিয়ে আসার পর এলাকা ছেড়ে কৌশলে পালিয়ে যায়  আওয়ামীলীগ এমপির পুত্রবধূ টুম্পা।

এরপর থেকে টুম্পাকে এলাকায় আর দেখা যায়নি। মায়ের লাশ দাফনের সময়ও টুম্পা নিহত মায়ের পাশে ছিল না। মায়ের শেষ মুখটুকুও তিনি দেখিনি। পুলিশ শুক্রবার বেলা ১১টা পর্যন্ত টুম্পা খাতুনকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি।

এদিকে এ ঘটনাকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে তার মা স্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে বলে এলাকায় প্রচার করে টুম্পা খাতুন।

পুলিশ বলছে, লাশের গায়ে একাধিক আঘাতের চিহ্ন ছিল। তাই নিঃসন্দেহে এটি একটি হত্যাকাণ্ড।

জানা যায়, অনেকদিন ধরেই টুম্পা খাতুন ইয়াবাসহ বিভিন্ন মাদক সেবন করতেন। বেপোরোয়া চলাফেরার কারণে ৩ বছর আগে তার স্বামী তাকে তালাক দেয়। মা এগুলোর বিরোধিতা করায় মাকে প্রায়ই মারধর করতেন টুম্পা।

Comments

comments