বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতির মহাসচিব মোজাম্মেল গ্রেপ্তার

বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতির মহাসচিব মোজাম্মেল হক চৌধুরীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল বুধবার দিবাগত রাতে তাঁকে গ্রেপ্তার করে মিরপুর মডেল থানার পুলিশ।

পুলিশ জানায়, চাঁদাবাজির একটি মামলায় মোজাম্মেলকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

মিরপুর মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) রিয়াজুল ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, গ্রেপ্তারের পর মোজাম্মেলকে থানায় আনা হয়।

বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সামসুদ্দিন চৌধুরীর ভাষ্য, গতকাল দিবাগত রাত সাড়ে তিনটার দিকে নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের সানারপাড় এলাকার নিজ বাসা থেকে মোজাম্মেলকে পুলিশ পরিচয়ে উঠিয়ে নেওয়া হয়।

সামসুদ্দিন চৌধুরী প্রথম আলোকে বলেন, মিরপুর থানার পুলিশ প্রথমে মামলার কথা বলেনি। থানায় নেওয়ার পর মোজাম্মেলকে চাঁদাবাজির মামলায় গ্রেপ্তারের কথা জানায়। মোজাম্মেলের বিরুদ্ধে আগে কখনো কোনো থানায় জিডি পর্যন্ত হয়নি।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, মোজাম্মেলের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির অভিযোগে দুলাল নামের এক ব্যক্তি একটি মামলা করেছেন। এই মামলায় তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

মিরপুর মডেল থানা সূত্রে জানা গেছে, দুলাল নামের এক ব্যক্তি গতকাল থানায় চাঁদাবাজির অভিযোগ এনে একটি মামলা করেন। মামলার নম্বর ১৪। এই মামলায় মোজাম্মেলকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

মিরপুর মডেল থানার পুলিশ জানিয়েছে, চাঁদাবাজির মামলায় মোজাম্মেলকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। এ জন্য তাঁকে আজ বৃহস্পতিবার আদালতে তোলা হবে। তাঁকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করতে আদালতে আবেদন করা হতে পারে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মিরপুর মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) বজলুর রহমানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ‘ডিসি স্যারের নির্দেশ আছে। কথা বলা যাবে না।’

জানতে চাইলে মিরপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দাদন ফকির বলেন, চাঁদাবাজির মামলায় উল্লেখ থাকা মোবাইল নম্বর অনুযায়ী মোজাম্মেলকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

প্রথম আলো

Comments

comments